মেহেদির রং লালের চেয়ে লাল করার উপায়

0
169
মেহেদির রং লালের চেয়ে লাল করার উপায়
মেহেদির রং লালের চেয়ে লাল করার উপায়

ঈদ, উৎসব, আমেজে অথবা যে কোনো আনন্দ অনুষ্ঠানে মেহেদি লাগানোর প্রথা বহুকালের। ঈদের সাজ পূর্ণতা পায় মেহেদি লালে। লালের চেয়ে লাল রঙের মেহেদি হাতের সভা বৃদ্ধি করে। ঈদের আর বাকি মাত্র দুদিন।

বাজারে বর্তমানে রাসায়নিক উপাদান মিশ্রিত মেহেদিই বেশি পাওয়া যায় যা দ্রুত রং দেয়। আমার জানা মতে বাজারের কিছু জনপ্রিয় মেহেদী যেমন মমতাজ হারবাল প্রডাক্টসের বি এস টি আই অনুমোদিত গোল্ড নং ১, কোণ ন-১, স্মার্ট, রাঙ্গাপরি।

মেহেদির রং গাঢ় করার কয়েকটি কৌশল জেনে নিন।

– মেহেদি ব্যবহারের আগে হাত ভালো মতো ধুয়ে নিতে হবে। কোনো রকম তেল বা লোশন আগে হাতে ব্যবহার করা যাবে না। এতে মেহেদির রং ভালো মতো ত্বকে শোষিত হবে ও স্থায়ী হবে।

মেহেদি ব্যবহারের আগে আপনার হাত-পা শেভ করবেন না। এমনকি ওয়াক্সিং করাও ঠিক নয়। এর ফলে ত্বকের উপরের স্তর ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাই পরবর্তীতে ওই ত্বকে মেহেদি ব্যবহার করলে গাঢ় রং পাওয়া যায় না। মেহেদি পরার ৩-৪ দিন আগে এসব কাজ সম্পন্ন করুন।

– মেহেদি তুলে ফেলার পরে হাত না ধুয়ে তাতে এসেনশল অয়েল বিশেষ করে জোজোবা তেল ব্যবহার করা রং গাঢ় করতে সহায়তা করে। জোজোবা তেল মেহেদিতে থাকা কোনো রাসায়নিক উপাদানের কারণে হওয়া পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হ্রাস করতেও সহায়তা করে।

গাঢ় রং পেতে উৎসব বা অনুষ্ঠানের অন্তত ২৪ বা ৪৮ ঘণ্টা আগে মেহেদি ব্যবহার করুন। সেইসঙ্গে সর্বোচ্চ ৭-১২ ঘণ্টা মেহেদি হাতে রাখুন। তাহলেই পাবেন গাঢ় রং।

– জোজোবা তেল ছাড়াও, অন্যান্য তেল যেমন- সরিষা ও ইউক্যালিপটাস তেলও ব্যবহার করা যেতে পারে।

– মেহেদির রং গাঢ় করার আরেকটি বেশ কার্যকর পদ্ধতি হল, একটা তাওয়ায় লবঙ্গ গরম করে এর গুঁড়া অথবা আস্ত লবঙ্গ সহনীয় গরম থাকা অবস্থায় মেহেদিতে তাপ প্রয়োগ করতে হবে। এই তাপ মেহেদির রং কড়া করে ও স্থায়িত্ব বাড়ায়।”

– সবচেয়ে প্রচলিত ও জনপ্রিয় উপায় হল মেহদি শুকিয়ে যাওয়ার পরে এর উপরে লেবু ও চিনির সংমিশ্রণ ব্যবহার করা। এতে মেহেদির রং গাঢ় হয়।

– তবে মনে রাখতে হবে, এই মিশ্রণের অতিরিক্ত প্রয়োগ মেহেদির রং হালকাও করে ফেলতে পারে। তাই পরিমিত ব্যবহার করতে হবে।

– রূপচর্চা বিষয়ক অনেক প্রতিবেদনগুলো থেকে জানা যায়, মেহেদি শুকানোর পরে তাতে যে কোনো বাম বা অয়েনমেন্ট ব্যবহারেও রং গাঢ় করতে সহায়তা করে।

– অনেকে আচারের তেল ব্যবহার করেও এই রংয়ের স্থায়িত্ব বাড়ান বলে জানা যায়।

এছাড়াও, মেহেদির রং কড়া করতে ও স্থায়িত্ব বাড়াতে ব্যবহারের পরবর্তি চব্বিশ ঘন্টা যতটা সম্ভব কম পানির সংস্পর্শে যাওয়া উচিত। সারা রাত হাতে মেহেদি রেখে দিলে পর দিন সকালে রং বেশ কড়া হয়।