মালদ্বীপের নতুন প্রেসিডেন্ট ‌‘ভারতবিরোধী’ মোহামেদ মুইজ্জু

0
25
মালদ্বীপের নতুন প্রেসিডেন্ট
মালদ্বীপের নতুন প্রেসিডেন্ট ‌‘ভারতবিরোধী’ মোহামেদ মুইজ্জু

‘ভারতবিরোধী’ হিসেবে পরিচিত রাজধানী মালের মেয়র মোহামেদ মুইজ্জু মালদ্বীপের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। ৫৪ শতাংশ ভোট পেয়ে দেশটির বিরোধী দল প্রগ্রেসিভ পার্টি অব দ্য মালদ্বীপের (পিপিএম) নেতৃত্বাধীন জোট থেকে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

নির্বাচনে জয়লাভের পরপরই দলের কারাবন্দি দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লা ইয়ামিনের ‍মুক্তি দাবি জানিয়েছেন মুইজ্জু। পিপিএমের সদরে এক বিবৃতিতে নিজেকে ‍বিজয়ী ঘোষণা করে এ দাবি জানান তিনি। দুর্নীতি মামলায় ১১ বছরের সাজা ভোগ করছেন আব্দুল্লা ইয়ামিন।

অন্যদিকে নির্বাচনে পরাজয় স্বীকার করে নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানিয়েছেন নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহামেদ সলিহ।

চীন ও ভারতের সঙ্গে মালদ্বীপের সম্পর্কের ক্ষেত্রে এ নির্বাচন তাৎপর্যপূর্ণ প্রভাব ফেলবে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

গত ৯ সেপ্টেম্বর মালদ্বীপে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তবে সেদিন এককভাবে কোনো প্রার্থী ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পাননি। ফলে এ নির্বাচন গড়ায় দ্বিতীয় দফায় (রানঅফ)।

নির্বাচনের আগে মোহামেদ মুইজ্জু প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট হতে পারলে মালদ্বীপে ভারতের প্রভাব কমাবেন। এছাড়া দেশটিতে যে অল্প সংখ্যক ভারতীয় সেনা মোতায়েন আছেন তাদের বের করে দেবেন।

৪৫ বছর বয়সী মুইজুর রাজনৈতিক দল পিপিএম নেতৃত্বাধীন জোট ২০১৩ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় ছিল। এসময় চীনের সঙ্গে গভীর সম্পর্ক গড়ে তোলে মালদ্বীপ।

২০১৮ সালে সবশেষ নির্বাচনে জয়লাভ করে প্রেসিডেন্ট হয়েছিলেন ইব্রাহিম মোহামেদ সলিহ। তাকে ‘ভারতপন্থি’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।