বিশ্বে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু কমেছে

0
31
বিশ্বে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু কমেছে
বিশ্বে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু কমেছে

মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বজুড়ে মৃত্যুর সংখ্যা কিছুটা কমেছে। একই সাথে আগের দিনের তুলনায় কমেছে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও। ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে মৃত্যু হয়েছে আট হাজার ৭ শ’ মানুষের। একই সময় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৫ লাখ ২৯ হাজার।

এ দিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমিত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। এছাড়া দৈনিক মৃত্যুর দিকে শীর্ষে রয়েছে ইন্দোনেশিয়া। এ নিয়ে বিশ্বে করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৯ কোটি ৮৫ লাখ। মৃত্যু হয়েছে ৪২ লাখ ৩২ হাজার মানুষের।

রোববার সকাল পর্যন্ত পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮ হাজার ৭৭১ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যু কমেছে প্রায় ৫০০। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৪২ লাখ ৩২ হাজার ২৯০ জনে।

এ ছাড়া একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ২৯ হাজার ১৪১ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে ১ লাখ ১১ হাজারের বেশি। এতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯ কোটি ৮৫ লাখ ১ হাজার ৬২১ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমিত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ হাজার ১৬৭ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ৫৭ লাখ ৪৩ হাজার ২৯৩ জন করোনায় আক্রান্ত এবং ৬ লাখ ২৯ হাজার ৩১৪ জন মারা গেছেন।

অন্য দিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির হয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ ইন্দোনেশিয়ায়। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৮০৮ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭ হাজার ২৮৪ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩৪ লাখ ৯ হাজার ৬৫৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৯৪ হাজার ১১৯ জনের।

এদিকে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৯২৫ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭ হাজার ৫৮২ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা এক কোটি ৯৯ লাখ ১৭ হাজার ৮৫৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৫৬ হাজার ৪৩৭ জনের।