টানা ১৯ দিনের ছুটির ফাঁদে পরছে দেশ

0
43
টানা ১৯ দিনের ছুটির ফাঁদে পরছে দেশ
টানা ১৯ দিনের ছুটির ফাঁদে পরছে দেশ

 “জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, ঈদের পর বিধি-নিষেধ তথা লকডাউন কঠোর থেকে কঠোরতর হবে। শিল্প কারখানাও বন্ধ রাখা হবে। এর আগে, পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ঈদের পরের বিধি-নিষিধে সেনাবাহিনীসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা মাঠে থাকবেন বলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ১৩ জুলাইয়ের প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়। ”   

সরকারিভাবে কোরবানি ঈদের ছুটি ৩ দিন হলেও মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে ঘোষিত বিধি-নিষিধের ছুটি মিলিয়ে সর্বমোট ১৯ দিনের ছুটির ফাঁদে পরছে দেশ। ঈদের ছুটি ও সাপ্তাহিক ছুটি ছাড়াও করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ঘোষিত কঠোর বিধি-নিষিধের আওতায় অফিস. দোকানপাট ও গণপরিবহন বন্ধ থাকায় এই টানা দীর্ঘ ছুটি শুরু হয়েছে।

ঈদের ছুটি শুরু হচ্ছে মঙ্গলবার (২০ জুলাই)। ঈদের তিন দিন (২০, ২১ ও ২২ জুলাই) ছুটি শেষে ২৩ ও ২৪ জুলাই সাপ্তাহিক (শুক্র ও শনিবার) ছুটি। ফলে ঈদের ছুটি মিলে টানা পাঁচ দিনের ছুটি পাচ্ছেন সবাই।

অপরদিকে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে ২৩ জুলাই সকাল ৬টা থেকেই আবার শুরু হচ্ছে বিধি-নিষেধ। এই বিধি-নিষেধ চলবে ৫ আগস্ট দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত। অর্থাৎ মোট ১৪ দিন থাকছে বিধি-নিষেধ। এই বিধি-নিষিধে সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও বেসরকারি অফিস বন্ধ রাখা হবে। বন্ধ থাকবে সব শিল্প কারখানা এবং গণপরিবহন। 

  আগামী ৫ আগস্ট দিবাগত রাত ১২টার পরদিন শুক্র ও শনিবার (৬ ও ৭ আগস্ট) সাপ্তাহিক ছুটি। সাপ্তাহিক ছুটিতে সরকারি অফিস বন্ধ থাকলেও অধিকাংশ বেসরকারি অফিস খোলা থাকে। কিন্তু করোনা সংক্রমণের কারণে মূলত ঢাকা ত্যাগ করা মানুষদের আসার সুযোগ রেখে ৮ আগস্ট থেকেই শুরু হবে বেসরকারি অফিসের কার্যক্রম।