ঘূর্ণিঝড় হামুন : ১৫ লাখ মানুষকে নেয়া হবে আশ্রয়কেন্দ্রে

0
11
হামুন
ঘূর্ণিঝড় হামুনঃ ১৫ লাখ মানুষকে নেয়া হবে আশ্রয়কেন্দ্রে

ঘূর্ণিঝড় হামুনের ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে উপকূলীয় এলাকার ঝূঁকিপূর্ণ ১০ জেলার ১৫ লাখ মানুষকে মঙ্গলবার রাত ৮টার মধ্যে আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর) সচিবালয়ে ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির বাস্তবায়ন বোর্ডের জরুরি সভা শেষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান এ কথা জানান।

আরও পড়ুনঃ ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিয়েছে ‘হামুন’: সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর সংকেত

এ সময় তিনি পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বরগুনা, চট্টগ্রাম, ফেনী, নোয়াখালী ও লক্ষ্মীপুরকে ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনা করে বলেন, এই ১০ জেলার ১৫ লাখ মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে নেয়া হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের গতিপথ, গতিবেগ ও চরিত্র বিশ্লেষণ করে আমরা ধারণা করছি, মঙ্গলবার রাত ১০টা থেকে সকাল ১০টার মধ্যে এটি উপকূলীয় অঞ্চল অতিক্রম করবে। সেজন্য এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

স্থানীয় হুঁশিয়ার সংকেত নামিয়ে পায়রা ও চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দরকে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত এবং কক্সবাজার সমুদ্ররকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত এবং মোংলা সমুদ্রবন্দরকে ৫ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।