গুগল প্লে-স্টোর সহ ১০১ টি অ্যাপে স্পাইওয়্যার

0
39
গুগল প্লে-স্টোর সহ ১০১ টি অ্যাপে স্পাইওয়্যার
গুগল প্লে-স্টোর সহ ১০১ টি অ্যাপে স্পাইওয়্যার

অ্যান্টিভাইরাস সংস্থা ডক্টর ওয়েব বলছে, গুগল প্লে-স্টোরের একাধিক অ্যাপে স্পাইওয়্যার রয়েছে! আর সেই অ্যাপগুলো মোট ৪২ কোটির বেশি ডাউনলোড হয়েছে।

বলা হচ্ছে, ১০১ টি অ্যাপে স্পাইওয়্যার ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে আপনার ফোনে নজরদারি চালাচ্ছে হ্যাকার।

গুগল প্লে-স্টোরের একাধিক অ্যাপে এই স্পাইওয়্যার মডিউল এবং তার মডিফায়েড কপি পেয়েছে ডক্টর ওয়েব।

অ্যান্ড্রয়েড সফ্টওয়্যার মডিউলে মিনি গেমের আড়ালে স্পাইওয়্যার। যে স্পাইওয়্যার মোবাইল ফোনের ফাইল থেকে গোপন তথ্য নিয়ে সহজেই সাইবার অপরাধীদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। অ্যান্ড্রয়েড, স্পিনওকে নামের এই স্পাইওয়্যারকে বিপণন সফ্টওয়্যারের মোড়কে বণ্টন করা হয়েছে।

ডক্টর ওয়েবের নজরে এসেছে, স্পিনওকে নামের এই স্পাইওয়্যার গ্রাহকদের মোবাইল ফোনের উপর নজরদারির মাধ্যমে ফোন নাম্বার, পাসওয়ার্ডের মতো গোপন তথ্য সাইবার অপরাধীদের কাছে পাচার করে। এই স্পাইওয়্যার সমস্ত ধরনের অ্যাপ এবং গেমের মধ্যে ঢুকিয়ে দিতে পারে ডেভেলপাররা।

হ্যাকাররা স্পিনওকে মডিউলের এমন ডিজাইন করেছে, যা ব্যবহারকারীদের মিনি গেম, একাধিক টাস্ক এবং পুরস্কারের টোপ দিয়ে অ্যাপ ডাউনলোডে আকৃষ্ট করবে।

কিন্তু, অ্যাপ ডাউনলোড করা হলেই এই ট্রোজাল সফ্টওয়্যার ডেভেলপমেন্ট কিট একটি কম্যান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল (সিঅ্যান্ডসি) সার্ভারের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করে।

এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানিয়েছে, “আমাদের ম্যালওয়্যার অ্যানালিস্টরা ১০১ টি অ্যাপে এই স্পাইওয়্যারের সন্ধান পেয়েছে। যেগুলি ৪২১, ২৯০, ৩০০ বার ডাউনলোড হয়েছে।

ডক্টর ওয়েব রিপোর্টে জানিয়েছে, এর ফলে হাজার হাজার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল গ্রাহকরা সাইবার চরবৃত্তির মুখে পড়তে পারে।”

সুত্রঃ এই সময়