কাল বইমেলার উদ্বোধন

0
79
কাল বইমেলার উদ্বোধন
কাল বইমেলার উদ্বোধন

আগামীকাল মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) অমর একুশে বইমেলা-২০২২ এর উদ্বোধন করা হবে। এ দিন বেলা ৩টায় বঙ্গভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৩৮তম এই মেলার উদ্বোধন ঘোষণা করবেন।

করোনার কারণে অর্ধেক সময় নিয়ে বইমেলা শুরু হলেও করোনা সংক্রমণের নিম্নগতি অব্যাহত থাকলে সময়সীমা বাড়ানোর প্রত্যাশা করছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় বইমেলা-২০২২ উপলক্ষে বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্য বিশারদ অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন তিনি এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, মেলার এবারের প্রতিপাদ্য হলো ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী’। করোনা মহামারির কারণে একসময় মনে হয়েছিল এবার হয়তো বইমেলা করতেই পারবো না। প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক নির্দেশনায় আশা করছি, আগামীকাল বেলা ৩টায় বইমেলার পর্দা ওঠবে। কোভিডের কারণে এবারের বইমেলায় সময় অর্ধেক কমিয়ে আনা হয়েছে।

১৫ থেকে ২৮ তারিখ পর্যন্ত মেলা চলবে। সংক্রমণ কমলে মেলার সময় কিছুটা হলেও বাড়াতে পারবো। সংক্রমণ যেভাবে কমছে এ ধারা যদি অব্যাহত থাকে—আমরা বিশ্বাস করি, মেলার সময়সীমা খানিকটা বাড়াতে পারবো। সে জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীর নিদর্শনার অপেক্ষায় আছি।’ এ সময় তিনি মেলা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সবার সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন।

মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের ২০২২ সালে প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্য থেকে গুণগতমান বিচারে সেরা বইয়ের জন্য প্রকাশককে চিত্তরঞ্জন সাহা স্মৃতি পুরস্কার এবং ২০২২ সালের বইমেলায় প্রকাশিত বইয়ের মধ্য থেকে শৈল্পিক বিচারে সেরা বই প্রকাশের জন্য ৩টি প্রতিষ্ঠানকে মুনীর চৌধুরী স্মৃতি পুরস্কার দেওয়া হবে। এছাড়া ২০২২ সালে প্রকাশিত শিশুতোষ গ্রন্থের মধ্য থেকে গুণগত মান বিচারে সর্বাধিক গ্রন্থের জন্য একটি প্রতিষ্ঠানকে রোকনুজ্জামান খান দাদাভাই স্মৃতি পুরস্কার এবং এ বছরের মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের মধ্য থেকে স্টলের নান্দনিক সাজসজ্জায় শ্রেষ্ঠ বিবেচিত প্রতিষ্ঠানকে কাইয়ুম চৌধুরী স্মৃতি পুরস্কার প্রদান করা হবে বলেও তিনি জানান।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব আবুল মনসুর, বাংলা একাডেমির সচিব এইচ এম লোকমান, বিকাশের চিফ মার্কেটিং অ্যাডভাইজার মীর নওবত আলীসহ অনেকে।