আজ হুমায়ুন আহমেদের মৃত্যুবার্ষিকী

0
47
আজ হুমায়ুন আহমেদের মৃত্যুবার্ষিকী
আজ হুমায়ুন আহমেদের মৃত্যুবার্ষিকী

আজ ১৯ জুলাই, নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদের ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০১২ সালের এই দিনে ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন এ কথাশিল্পী।

মৃত্যুর পর গাজীপুর সদর উপজেলার পিরুজালী গ্রামে তার নিজ হাতে গড়া স্বপ্নের নুহাশপল্লীতে সমাহিত করা হয়। তবে হিমু, মিসির আলির মতো অসংখ্য জনপ্রিয় চরিত্র তৈরি করে এখনও পাঠকের মনে বেঁচে আছেন হুমায়ুন আহমেদ।

হুমায়ুন আহমেদের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নুহাশপল্লীতে খতমে কুরআন, দোয়া মাহফিলের আয়োজন এবং তার কবরে শ্রদ্ধা জানানো হয়। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হুমায়ুন ভক্তরা চলে আসেন এই নুহাশ পল্লীতে। এদিন নুহাশ পল্লীতে শোক আর স্মৃতির ভিড়ে বিভোর থাকেন ভক্তরা।

বাংলা সাহিত্যে অসাধারণ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ হুমায়ূন আহমেদকে একুশে পদক, বাংলা একাডেমী পুরস্কার, মাইকেল মধুসূদন পদক দেয়া হয়।

নব্বই দশকের শুরুতে চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবে আবির্ভাব ঘটে হুমায়ূন আহমেদের। নিজের উপন্যাসের ওপর ভিত্তি করে হুমায়ূনের পরিচালিত চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে- ‘আগুনের পরশমণি’, ‘শ্যামল ছায়া’, ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’, ‘দুই দুয়ারী’, ‘চন্দ্রকথা’, ‘নয় নম্বর বিপদ সংকেত’, ‘ঘেটুপুত্র কমলা’ ইত্যাদি।

‘আগুনের পরশমণি’, ‘দারুচিনি দ্বীপ’ ও ‘ঘেটুপুত্র কমলা’ চলচ্চিত্রের জন্য বাংলাদেশ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন তিনি। হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুবার্ষিকীতে গভীর শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় প্রিয় সাহিত্যিককে স্মরণ করছেন তার অগণিত ভক্ত।