পুজায় হরেক রকম নাড়ু-লাড্ডু

0
30

ডেস্ক : 

পুজায় এতো রকমারি খাবারের মাঝে খাবারদাবারের তালিকায় লাড্ডু-নাড়ু থাকবে না, সেটা কখনোই সম্ভব না। তাছাড়া নাড়ু ছাড়া পুজার খাবার অনেকটাই অসম্পূর্ণই থেকে যায়। মিষ্টি ও মুখরোচক এই খাবারটি সবার কাছেই সমান প্রিয়। তাই সোনাতন ধর্মাবলম্বী পাঠকদের জন্য রইলো নাড়ু ও লাড্ডু তৈরির রেসিপি।

তিলের লাড্ডু

উপকরণ:

তিল ২৫০ গ্রাম, গুড় ২৫০ গ্রাম, ঘি ১ কাপ।

প্রণালি:

প্রথমে তিল টেলে নিন। অর্থাৎ তেল ছাড়া ভেজে নিন। এরপর পরিষ্কার করে খোসা ছাড়িয়ে নিন। এবার চুলায় একটি পাত্রে গুড় জ্বাল দিন। গুড় গলে গেলে তিল দিয়ে নাড়তে থাকুন। এবার গুড়ের সঙ্গে তিল মিলে শক্ত হয়ে এলে নামিয়ে নিন। একটি পাত্রে তিলের মিশ্রণ ঢেলে গরম থাকতেই ঘি দিয়ে মিশিয়ে নিন। পছন্দসই আকারে লাড্ডু তৈরি করুন।

বেসনের লাড্ডু

উপকরণ:

বেসন ৪ কাপ, ঘি ১ কাপ, পাউডার চিনি ২ কাপ, কাজু বাদাম কুচি আধা কাপ, এলাচ গুঁড়া আধা চা চামচ।

প্রণালি:

কড়াইয়ে ঘি গরম করে নিতে হবে। এবার সবটুকু বেসন ঢেলে একভাবে নাড়তে থাকুন। খেয়াল রাখতে হবে যেন কড়াইয়ের নিচে পুড়ে না যায়। এবার মৃদু আঁচে ১০ থেকে ১২ মিনিট ভাজার পর বাদাম আর এলাচ গুঁড়া দিতে হবে। সবকিছু ভালোভাবে মিশিয়ে নামিয়ে রাখুন। একটু ঠাণ্ডা হলে তাতে চিনি ছিটিয়ে মেখে নিলে মিশ্রণটি বেশ আঠালো হয়ে উঠবে।

এবার হাতে অল্প তেল মাখিয়ে ছোট লাড্ডুর আকার দিন। সম্পূর্ণ ঠাণ্ডা করতে ২ ঘণ্টা ফ্রিজেও রেখে দিতে পারেন।

নারকেলের নাড়ু

যা যা লাগবে

নারকেল ২ টি, খেজুরের গুড় আধা কেজি, এলাচ গুঁড়ো ১/৪ চা চামচ, তেজপাতা ১ টি, লবণ ১ চিমটি, দারুচিনির টুকরো কয়েকটি।

প্রস্তুত প্রণালি

প্রথমে নারকেল কুরিয়ে নিন। এবার কোরানো নারকেল ও গুড় ভালো করে মিশিয়ে কড়াইয়ে দিন। কড়াই নন-স্টিকি হলে ভালো হয়। এতে তলায় পোড়া লাগবে না। দারুচিনি, তেজপাতা, এলাচ গুঁড়ো ও লবণ দিয়ে দিন। সেগুলো এরপর কড়াইয়ে ভাজতে থাকুন। ক্রমাগত নাড়ুন যাতে তলায় লেগে না যায়। ভাজতে ভাজতে নরম ও আঠালো হয়ে গেলে চুলা থেকে কড়াই নামিয়ে নিন।

তারপর সহনীয় গরম থাকতে থাকতে হাতের তালুতে অল্প ঘি মেখে নারিকেল নিয়ে ছোট বলের মতো গোল আকৃতি দিন। ঠাণ্ডা হলে সংরক্ষণ করুন মুখবন্ধ কোনো পাত্রে। চাইলে চাল ভাজার মিহি গুঁড়োতে গড়িয়ে রেখে দিতে পারেন।

মতিচুর লাড্ডু

মতিচুর লাড্ডুর আলাদা সুনাম আছে সবার মুখে মুখে। এই পূজাতেও মতিচুর লাড্ডু বানিয়ে নিতে ভুলবেন না।

উপকরণ:

বেসন ১ কাপ, বেকিং পাউডার ১ চা চামচ, পানি পরিমাণমতো, চিনি ১ কাপ, পানি ১ কাপ, ঘি ১ টে. চামচ, ফুড কালার পছন্দমতো, তেল ভাজার জন্য।

তৈরির প্রণালি:

প্রথমে বেসন আর বেকিং পাউডার ভালো করে মিশিয়ে ৩/৪ কাপ পানি দিয়ে বেসনটা গুলে ভালো করে মিক্স করে সেটা ঘণ্টাখানেক ঢেকে রাখুন। এরপর গোলা টা ভাগ ভাগ করে একেক ভাগে একেক ফুড কালার মিশান।

এবার একটি প্যানে তেল গরম করে বড় ফুটো ওয়ালা ঝাঁঝরি চামচ এর উপর বেসনের গোলাটা অল্প অল্প করে ঢেলে কম আঁচে ডুবো তেলে বুন্দিয়া গুলো ভেজে তুলুন। এভাবে সব গুলো বুন্দিয়া ভেজে তুলে রাখুন।

এবার আরেকটি প্যানে এক কাপ চিনি ও এক কাপ পানি দিয়ে চুলায় বসিয়ে ঘন সিরা করে নিন। সিরা খুব ঘন হয়ে এলে ভাজা বুন্দিয়া গুলো সিরায় দিয়ে সাথে এক টে: চামচ ঘি দিন এবং ভাল করে নেড়ে চেড়ে নামিয়ে বুন্দিয়া গুলো একটি প্লেটে ছড়িয়ে রাখুন।

কিছুক্ষণ পর বুন্দিয়াগুলো হালকা গরম থাকতে হাতে সামান্য ঘি লাগিয়ে বুন্দিয়া গুলো মুঠো করে নিয়ে চেপে চেপে গোল লাড্ডু বানিয়ে নিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.