আজ রোববার তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে

0
209

এক দিনের ব্যবধানে রাজধানী বাদে দেশের বেশির ভাগ এলাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত বেড়েছে। তবে কুয়াশার কারণে সূর্যের দেখা পাওয়া যায়নি। এতে শীতের অনুভূতি কমেনি। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস বলছে, আজ রোববারও তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ বলেন, দুই দিন ধরে দেশের বেশির ভাগ এলাকার সর্বনিম্ন
তাপমাত্রা বাড়ছে। আজ রোববার তা আরও বাড়তে পারে। তবে দিন ও রাতের তাপমাত্রার পার্থক্য কম হওয়ায় এবং কুয়াশার কারণে রোদের দেখা না পাওয়ায় শীতের অনুভূতি বেশি মনে হচ্ছে। ২৫ থেকে ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে হালকা বৃষ্টি হতে পারে। এতে কুয়াশা কেটে গিয়ে শীতের দাপট কিছুটা হলেও কমে আসতে পারে।

চলতি বছরের মধ্যে গতকাল রাজধানীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল সবচেয়ে কম। ভোরে রাজধানীর তাপমাত্রা ১২ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে। দিনের বেশির ভাগ সময় শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ১৪ থেকে ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত শহরের বেশির ভাগ এলাকা ছিল ঘন কুয়াশায় আবৃত। ফলে বছরের যেকোনো সময়ের তুলনায় রাজধানীবাসীর কাছে শীতের অনুভূতি বেশি ছিল। নগরের ছিন্নমূল মানুষ ও হকারদের বিভিন্ন স্থানে আগুন জ্বালিয়ে উষ্ণতা পোহাতে দেখা গেছে।

রাজধানীর তাপমাত্রা কমে আসার ফলে চার দিন ধরে বায়ুর মানও ক্রমেই খারাপ হয়ে উঠছে। গত তিন দিনের মতো গতকালও বৈশ্বিক বায়ু মান পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা এয়ার ভিজ্যুয়ালের তথ্য অনুযায়ী গতকাল সকাল থেকে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত রাজধানীর বায়ুর মান ছিল খুবই অস্বাস্থ্যকর। বিশ্বের প্রধান শহরগুলোর মধ্যে গতকাল বেশির ভাগ সময় ঢাকার বায়ু ছিল দূষণের দিক থেকে তৃতীয়। এ ধরনের দূষিত বায়ু কোথাও থাকলে দরজা-জানালা বন্ধ রাখার জন্য নগরবাসীকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ কাজ ছাড়া শিশু ও বৃদ্ধদের বাইরে না যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

গতকাল দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ফরিদপুরে ১০ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশের উত্তর ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের কোথাও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১–এর নিচে নামেনি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে থাকলে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়। সেই হিসাবে গতকাল শৈত্যপ্রবাহ আপাতত বিদায় নিয়েছে বলা যায়। তবে কুয়াশার কারণে শীতের অনুভূতি বেশি হওয়ায় ভোগান্তি খুব বেশি কমেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here